1. admin@dainiksomoyersathe.com : admin :
  2. admin@hasibitsolution.com : Hasib :
  3. info.popularhostbd@gmail.com : PopularHostBD :
শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ০৭:২৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
৩০০ চালককে ফ্রি লাইসেন্স দিলেন চেয়ারম্যান- দৈনিক সময়ের সাথে! রেলের জলাশয় ভরাটের অভিযোগ, কর্তৃপক্ষ নিরব- দৈনিক সময়ের সাথে! যমুনার পানি সামান্য কমলেও বিশুদ্ধ পানি ও খাবার সংকটে বানভাসি মানুষ- দৈনিক সময়ের সাথে! উৎসবমুখর পরিবেশে রথযাত্রা অনুষ্ঠিত- দৈনিক সময়ের সাথে! বন্যার স্রোতে ভেঙে গেছে সড়ক, চরম দুর্ভোগে গ্রামবাসী- দৈনিক সময়ের সাথে! ভূঞাপুরে পানিবন্দি কয়েক হাজার মানুষ- দৈনিক সময়ের সাথে! জামালপুরে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান কারাগারে, হরতাল পালন করছে সমর্থকরা- দৈনিক সময়ের সাথে! ট্রেনের ৩২টি টিকিটসহ কালোবাজারি চক্রের ৫ সদস্য আটক- দৈনিক সময়ের সাথে! কলেজ কর্তৃপক্ষের প্রতারণার শিকার ২২ শিক্ষার্থী- দৈনিক সময়ের সাথে! বাঘারপাড়ার জামদিয়ায় ব্যতিক্রম ঘোড়দৌড় হতে যাচ্ছে- দৈনিক সময়ের সাথে!

বগুড়ায় গ্রাহকের টাকা আত্মসাৎ, এনজিও পরিচালকসহ গ্রেপ্তার ৪- দৈনিক সময়ের সাথে!

Reporter Name
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৪ জুন, ২০২৪
  • ৫১ বার পড়া হয়েছে

বগুড়া প্রতিনিধি

গ্রেপ্তার চারজনের মধ্যে তিনজন। ছবি: সংগৃহীত
বগুড়ার গাবতলীতে গ্রাহকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগে এক এনজিওর পরিচালকসহ চার কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার রাতে গ্রেপ্তারের পর আজ মঙ্গলবার দুপুরে তাঁদেরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার গাবতলি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন—গাবতলী উপজেলার স্থানীয় এনজিও সমাজ উন্নয়ন কর্ম (সার্ক) এর পরিচালক আশরাফুল ইসলাম, উপপরিচালক ছামছুল আলম, ব্যবস্থাপক আইয়ুব আলী লিটন এবং হিসাব রক্ষক রাসেল মিয়া।

ওসি জানান, সমাজ উন্নয়ন কর্ম নামের এনজিওটির পরিচালকসহ অন্য কর্মকর্তারা সদস্য সংগ্রহ করে তাঁদেরকে অধিক মুনাফা দেওয়ার প্রলোভন দিয়ে তাঁদের টাকা এনজিওতে জমা করতে থাকেন। এভাবে তাঁরা শতাধিক গ্রাহকের কাছ থেকে দুই কোটির বেশি টাকা সংগ্রহ করেন। এরপর গ্রাহকদের লভ্যাংশ দেওয়া বন্ধ করে দেয়। গ্রাহকেরা তাঁদের মূলধনের টাকা ফেরত চাইলে বিভিন্নভাবে তালবাহানা শুরু করে। একপর্যায়ে তারা এনজিওর অফিসে তালা দিয়ে আত্মগোপন করেন।

প্রতারিত গ্রাহকদের মধ্যে সোলার তাইর গ্রামের আসাদুল ইসলাম গতকাল সোমবার গাবতলী থানায় মামলা করেন। মামলায় উল্লেখ করা হয়, তিনি তাঁর মামা আনোয়ার হোসেন, মা আছিয়া বেগম এনজিও কর্মকর্তাদের প্রলোভনে পড়ে ১৪ লাখ টাকা জমা করেন। কিন্তু দীর্ঘদিনেও লভ্যাংশ দেন না, এমনকি জমাকৃত মূল টাকা ফেরত চাইলে তালবাহানা শুরু করে। এ কারণে ওই এনজিও কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হলে গতকাল সোমবার রাতেই অভিযান চালিয়ে চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সংবাদ টি শেয়ার করুন

এ বিভাগের আরো সংবাদ
© All rights reserved
Design BY POPULAR HOST BD